ভৈরবে লুডু খেলার কথা বলে ডেকে নিয়ে ৫ বছরের শিশু ধর্ষণ।

ভৈরবে লুডু খেলার কথা বলে ডেকে নিয়ে ৫ বছরের শিশু ধর্ষণ।

ভৈরবের শম্ভুপুর শান্তিপাড়া এলাকায় এক কিশোরের বিরুদ্ধে ৫ বছরের এক শিশু কে ধর্ষণের অভিযোগ পাওয়া গেছে। ধর্ষক আজিজুল (১৪) একই এলাকার তৌফিক মিয়ার ছেলে। তবে ঘটনার পর থেকে অভিযুক্ত আজিজুল পলাতক রয়েছে, সেজন্য পুলিশ তাকে আটক করতে পারেনি।

পরিবারের সুত্রে জানাযায়, গত বৃহস্পতিবার (৪ জুন) বিকেলের দিকে মোবাইলে লুডু খেলার কথা বলে শিশুটিকে ঘরে ডেকে নিয়ে, পায়ু পথে ধর্ষণ করে, ধর্ষক আজিজুল। সেইদিন রাতে শিশুর প্রচন্ড পেট ব্যথা শুরু হলে, শিশুটি তার মাকে সব খুলে বলে। এই ঘটনা ধর্ষকের বাবা মাকে জানানোর পরও, কোন পাত্তা না দেয়ায় বিকেলে শিশুটিকে ভৈরব একটি হাসপাতালে নেয়া হয়।

ভৈরব উপজেলা স্বাস্থ্যকমপ্লেক্সে প্রাথমিক পরীক্ষায় ধর্ষণের আলমাত পাওয়ার কথা জানিয়েছেন কর্তব্যরত চিকিৎসক সাদিয়া সুলতানা। এবং তিনি তখনই পুলিশে খবর দেন। এই সময় তিনি আরো বলেন, আমি প্রাথমিক পরীক্ষায় ধর্ষণের আলামত পেয়েছি, তারপরেও অধিকতর পরীক্ষা ও চিকিৎসার জন্য তাকে কিশোরগঞ্জ সদর জেনারেল হাসপাতালে পেরন করেছি।

এই বিষয়ে ভৈরব থানার অফিসার ইনচার্জ মো. শাহিন ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে বলেন, ঘটনাটি শুনার পরই আমরা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্স যাই এবং শিশুটিকে কিশোরগঞ্জ সদর জেনারেল হাসপাতালে পেরন করি। আমরা অভিযুক্ত আজিজুলকে গ্রেফতার ও সঠিক তদন্ত করে দোষীর বিরুদ্ধে যথাযথ ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।